My Poem

The following poem has been published in www.bangla-kobita.com website.

তুমি ছিলে


তুমি ছিলে মুক্ত মনের
সুপ্ত ভাষার স্বপ্ন গাঁথায়,
তুমি ছিলে আঁচড়বিহীন
ইচ্ছেপূরণ ছবির খাতায়।
তুমি ছিলে মন মাতানো
অচিন ধারার সুর লহমায়,
তুমি ছিলে অলোক রূপের
স্বরূপ হারা দূর উপমায়।
তুমি ছিলে টুকরো মেঘে
ঠিকরে পড়া আলোকচ্ছটায়
তুমি ছিলে মৌন রাতের
জোছনা ঝরা উজ্জ্বলতায়।


আজকে যখন আসলে কাছে
স্বরূপ ধরে নিজ প্রতিমায়,
বিবশ মনে তোমার ছবিই
আটকে গেলো দৃষ্টিসীমায়।
মুগ্ধ দু'চোখ থমকে গেলো
তোমার কাজল চোখের তারায়,
হৃদয় জুড়ে উঠলো কী ঢেউ
লাগামহারা মাতাল ধারায়!
তোমার রূপে বশ মানা এই
আমায় এখন কে আর বাঁচায়?
চিরদিনের মুক্ত আমি
বন্দী হলাম তোমার খাঁচায়!



(রচনাকাল: ১০ ফেব্রুয়ারি ২০০৯ থেকে নিয়ে ১৯ মে ২০২১)



২৫টি মন্তব্য


২৮ অগাস্ট ২০২১
সেই খাঁচাতে মোর প্রিয়কবি যেন বন্দী থাকুক চিরদিন । ভালোবাসার সোহাগ নিয়ে তার জীবন হোকনা রঙিন । সফলতার সেই চূড়ায় চড়ে তার হাসিটুকু থাক অমলিন। অন্তরের অন্তস্থল থেকে তাই জানাই শুভ হোক জন্মদিন ।
৩১ অগাস্ট ২০২১
ধন্যবাদ সুন্দর ছন্দময় শুভেচ্ছার জন্য!
২৮ অগাস্ট ২০২১
জন্মদিনে শুভেচ্ছা।
৩১ অগাস্ট ২০২১
ধন্যবাদ আপনাকে!
২৮ অগাস্ট ২০২১
শুভ জন্মদিন প্রিয় কবি। যদি প্রশ্ন করা হয় জীবনের কোন্ দিনটি শুধুই নিজের দিন? উত্তর জন্মদিন। আপনার এই বিশেষ দিনটি ফিরে ফিরে আসুক সকল স্বপ্ন সকল সম্ভাবনা ও অশেষ সফলতার অঙ্গীকার নিয়ে।
৩১ অগাস্ট ২০২১
অসংখ্য ধন্যবাদ!
২৮ অগাস্ট ২০২১
শুভ জন্মদিন সম্মানীয় কবি। বছর বছর ফিরে আসুক এই শুভদিন। ভালো কাটুক প্রতি পল প্রতিদিন। জীবন হোক সুন্দর রঙিন।
৩১ অগাস্ট ২০২১
ধন্যবাদ! :)
১ জুন ২০২১
প্রিয়া যখন দূরে ছিলো ছিলো তখন ভাবনায় ছিলো শত উপমায়। আজ যখন আসলো কাছে মুক্ত এ প্রেমিক হলো প্রিয়ার খাঁচায় বন্দী! প্রেম ছন্দকে গেঁথেছে নাকি ছন্দ প্রেমকে? আমি বলি দুটোই! অনন্য সুন্দর প্রেমের কবিতা পাঠে মুগ্ধ হলাম প্রিয় কবি। অবিরত শুভেচ্ছা জানবেন আর ভালো থাকবেন।
১ জুন ২০২১
ধন্যবাদ আপনাকে!
২৭ মে ২০২১
ছন্দ আর শব্দশৈলীর নিখুঁত কারুকাজ। মন ছুঁয়ে যাওয়া প্রেমের কবিতা। মুগ্ধতা রেখে গেলাম। অভিনন্দন প্রিয় কবি।
২৮ মে ২০২১
ধন্যবাদ!
২৫ মে ২০২১
একদম নিখুঁত অন্ত্যমিল আর বৃত্তে লিখেছেন প্রিয় কবি। দুইটি অংশই আপনার অনেক চেস্টার ফলাফলে সৃষ্টি হয়েছে। তাই তো বলি বেশী কবিতা লিখার চেয়ে মানসম্পন্ন অল্প লেখাতেও অনেক তৃপ্তি পাওয়া যায়। আমি মুগ্ধ কবিতার নির্ভুল গাঁথুনিতে। শুভেচ্ছা প্রিয় বাংলা ডট কম আসরের পথ প্রদর্শক প্রিয় কবি জনাব পল্লব আশরাফ। ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন্‌ মাতিয়ে রাখুন কবিতার আসর।
২৬ মে ২০২১
ধন্যবাদ!
২৪ মে ২০২১
অপূর্ব প্রেমের কবিতা! মন ছুঁয়ে গেল প্রিয় কবি! অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানাই।
২৪ মে ২০২১
ধন্যবাদ! :)
২৩ মে ২০২১
ছন্দের নিখুঁত কারুকাজ, আর অন্তমিল যেন জাদু! সবচেয়ে আশ্চর্যের বিষয় হলো, প্রথম স্তবক লিখে ঠিক ১২ বছর পর ২য় স্তবক লিখলেও ভাবের সামান্যও হেরফের হয়নি! কারণ ১২ বছর আগে পরে একজন কবির একটি সত্ত্বাকে চিত্রায়নের জন্য যে মানসিকতা থাকা দরকার, তার মধ্যে দৃষ্টিভক্তির পরিবর্তনটাই স্বাভাবকি ছিলো। কিন্তু এই ক্ষেত্রে একই থেকেছে, যা ক্ষেত্র বিশেষে অনেকটাই অসম্ভব! তার মানে কবি ইচ্ছা করলে এখনো ঠিক ১২ বা ১৫ বছর আগের আবেগকে ধারণ করে অনায়াসে লিখে যেতে পারেন! দুর্দান্ত ব্যতিক্রমী ও বিরল! কবিকে অন্তর থেকে স্যালুট জানাই।
২৪ মে ২০২১
সুন্দর বিশ্লেষণের জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ আপনাকে। ১২ বছর আগে যখন কবিতাটির প্রথম অংশ লিখি, তখনই পরিকল্পনা এমন ছিলো যে প্রথম অংশে কল্পনায় না-দেখা যে মানবী ছিলো তাকে চিত্রিত করবো। এবং শেষ অংশে বাস্তবে তাকে পাওয়ার পরের অবস্থা আসবে। কিন্তু পরের অংশটি ঠিক কিভাবে সাজাবো তা তখন ঠিক করতে পারিনি। ১২ বছর পর আবার লেখাটি চোখে পড়ায় এবার সেই অনুভূতিটুকু অক্ষরে সাজাতে পেরেছি। কবিতা কেমন হয়েছে জানি না, তবে পুরো লেখাটি শেষ করে আমি অনাবিল এক তৃপ্তি পেয়েছি। সব কবিতার ক্ষেত্রে হয় না, তবে এক্ষেত্রে মনে হয়েছে যে মনের কথাটি নিজের পছন্দমতো বলতে পেরেছি।
২৩ মে ২০২১
সুন্দর প্রেমময় উপস্থাপনা। ভালো থাকবেন রক্তিম শুভেচ্ছা ।।
২৪ মে ২০২১
ধন্যবাদ আপনাকে!
২২ মে ২০২১
প্রেম ছাড়া জীবন বন্য বন্য প্রেমের সার্থক রূপায়ন এই আবেশিত কাব্য ধন্য ধন্য*****
২২ মে ২০২১
ধন্যবাদ প্রনব-দা!
২২ মে ২০২১
প্রেমের কবিতা, ভালো লাগলো প্রিয় কবি! অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানাই।
২২ মে ২০২১
ধন্যবাদ!
২২ মে ২০২১
চমৎকার।
২২ মে ২০২১
ধন্যবাদ!
১৯ মে ২০২১
চমৎকার ছন্দে আবেগময় প্রেমের কবিতা, ভাল লাগলো, শুভেচ্ছা ও শুভকামনা রইল।
১৯ মে ২০২১
ধন্যবাদ আপনাকে! :)
১৯ মে ২০২১
অপূর্ব প্রেমের কবিতা! দারুন ভালো লাগলো প্রিয় কবি! অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানাই।
১৯ মে ২০২১
ধন্যবাদ! :)
১৯ মে ২০২১
‘খাঁচায় বন্দী বনের চিতা দেখতে লাগে ভালো, প্রথম প্রহর ভুলে হালুম করেনা মুখ কালো। সময় যখন দিগন্ত ছোঁয় মুক্তির নেশা জাগে, চারপায়ে দাঁড়িয়ে তখন মাথা ঘুটে আগে।’ শুভেচ্ছা চিরন্তন প্রিয় কবি। আপনার সূদীর্ঘ ১২ টি বছরের সাধনার ফসল পড়ে কেনো যেনো আমার মত অকবির উপরের চরণগুলো মাথার মধ্যে খেলে গেল। আপনার সাথে শেয়ার না করে পারলাম না। অনেক অনেক ধন্যবাদ।
১৯ মে ২০২১
ধন্যবাদ! সত্যি বলতে এটি দুই দিনের সাধনা। প্রথম অর্ধেক ১২ বছর আগে এক দিনের প্রচেষ্টাতেই লিখেছিলাম। পরের অংশ আর সাজানো হয়নি তখন। আজ দ্বিতীয় দিনে তা শেষ করলাম।
১৯ মে ২০২১
অসম্ভব সুন্দর অন্তমিলে ছন্দময় প্রেমের কবিতা। মনে দোলা দিলে গেল। অনেক ভাল থাকবেন। শুভকামনা থাকল।
১৯ মে ২০২১
ধন্যবাদ!
১৯ মে ২০২১
দীর্ঘ সময় নিয়ে প্রেমের বারতা দিয়ে কবিতার কারুময়তা দিল মন ঝলকিয়ে। মনোপুত হলো। বেশ ভাল লাগলো। সালাম শুভেচ্ছা প্রিয় পল্লব আশফাক ভাই।
১৯ মে ২০২১
ধন্যবাদ আপনাকে! অনেক লেখাই আংশিক লিখে ফেলে রেখেছি বছরের পর বছর। নতুন কোনো দিনে নতুন করে আবার তা নিয়ে ভাব আসলে লেখা শেষ হয়। নইলে এভাবেই পড়ে থাকে ভবিষ্যতের প্রত্যাশায়।
১৯ মে ২০২১
’তাই বয়ে যায় এই গহীনে তোমার নামেই সুধার ধারা, ক্ষণ তাতে হয় চাঁদের প্রভা মন খোশে হয় আত্মহারা।’ নিখুঁত অন্ত্যমিলে স্বরবৃত্তে লেখা জাগ্রত প্রেমের কবিতা যা অনায়াসে বইয়ে দেয় গহীনে আবেশিত সুধার ধারা। ভীষণ ভীষণ মুগ্ধতায় শুভেচ্ছা ও শুভ কামনা রেখে গেলাম প্রিয় কবি। সুস্থ থাকুন খুব ভালো থাকুন নিরাপদে থাকুন।
১৯ মে ২০২১
ধন্যবাদ কবিতাটি পড়ে ছন্দে-ছড়ায় এ নিয়ে মন্তব্য করায়।
১৯ মে ২০২১
চমৎকার এক অন্তমিলের শিখানো কবিতা অনেক অনুপ্রাণিত কবি দা গোলা পের শুভেচ্ছা রইল
১৯ মে ২০২১
ধন্যবাদ লিটন দা!
১৯ মে ২০২১
অপূর্ব অনুপম মাধুর্য পূর্ণ শব্দ সম্ভারে নান্দনিক কাব্যিকতায় শুদ্ধতম নিখাদ প্রেমের বহিঃপ্রকাশ। ছুঁয়ে যায় মন লেখার তারায় গহীন কিংবা বাহির মায়ায় হৃদ যেখানে কম্পন হয়। হার্দিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানবেন প্রিয় শ্রদ্ধেয় কবিবর । সুস্থ থাকুন কামনা নিরন্তর ।
১৯ মে ২০২১
ধন্যবাদ! আপনিও সুস্থ থাকুন নিরন্তর।
১৯ মে ২০২১
মুক্ত জীবন হয়ে বন্দী মনে আজি খুশির জোয়ার, সময়ে সময়ে রঙ বদলায় তারি জন্য থাকো তৈয়ার। খুব ভালো লিখেছেন প্রিয় কবি। সাবধানে থাকবেন করোনা কালে।
১৯ মে ২০২১
ধন্যবাদ ছন্দময় মন্তব্যের জন্য।
১৯ মে ২০২১
মানব মন বারে বার্র বাঁধা পড়তে চায়- বন্ধন; অনুভূতি আর আবেগের বন্ধনে। মাঝে মাঝে সেই পথে কাঁটাময় পরিস্থিতি এলেও- মন ভালবাসে শুধুই হৃদয়ের সেই মানুষটিকেই!
১৯ মে ২০২১
অলোক রূপ যখন স্বরূপে ধরা দেয়, তখন সে নিজেও কিন্তু বন্দী হয়ে যায় মানব চেতনায়। নিরাকারের মধ্যেই বরং কল্পনার সব সম্ভাব্য দৃশ্য বিদ্যমান থাকে। :)
১৯ মে ২০২১
প্রেমিকার খাঁচায় বন্দী প্রেমিক !!! ভালো লেগেছে।
১৯ মে ২০২১
ধন্যবাদ! :)
১৯ মে ২০২১
প্রতিটি প্রেমিক পুরুষ চিরায়ত প্রেমিকার হৃদয়েরই খাঁচায় বন্দী হয়। কবিতার ভেতরে ছন্দের কারুময়তা, বক্তব্যের সাবলীলতা খুব ভালো লেগেছে। আরো ভালো লেগেছে যে-ই কবিতা শুরু হয়েছে ২০০৯ সালে, সেই কবিতা শেষ হয়েছে ২০২১ সালে। কবিতার জন্মকাল এত দীর্ঘ! তাই, কবিতার গভীরতা এবং ভাবনার বহিঃপ্রকাশ সুন্দর হয়েছে। ধন্যবাদ কবি পল্লব আশফাক। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন এবং সুস্থ থাকুন।
১৯ মে ২০২১
কল্পনা জুড়ে অনিশ্চয়তা। কিন্তু বন্দিত্বের মাঝেই নিশ্চয়তা। কবিতাটি ১২ বছরে শেষ হলেও প্রথম অর্ধেক লেখা হয়েছিলো এক দিনে। আর দ্বিতীয় অংশটিও লিখে শেষ করলাম এক দিনেই। তাই বলা যেতে পারে দুই দিনের প্রচেষ্টা কেবল। তবে মাঝখানের আরও কিছু সময় হয়তো শুধু ভাবনাতেই কেটেছে।
মন্তব্য করুন