My Poem

The following poem has been published in www.bangla-kobita.com website.

পিছুটান


আড়ালে হারিয়ে বলো কী পেয়েছ
পিছনে অতীত ফেলে?
অভিমান ভুলে সেই তো আবার
পিছনেই ফিরে এলে!!


সুখের স্মৃতিরা গোপনে হারিয়ে
এভাবেই পিছু ডাকে,
হারানো পথের বাঁকে বাঁকে তার
আহবান লেখা থাকে।
পিছুটানে সেই পথে আনবেই
জোনাকিরা আলো জ্বেলে।।


ফেলে আসা তিথি ফেলে দেয়া স্মৃতি
হারায় না জেনো দূরে,
জেগে উঠে প্রাণে আবারো সে গানে
ভুলে যাওয়া সুরে সুরে।


স্মৃতিদের ঘিরে তাই তো আবেগে
চুপিসারে প্রাণ জাগে,
মনের গোপনে গাঁথা হয় গান
কী ব্যাকুল অনুরাগে!
সুরে সুরে তার গেয়ে যায় পাখি
দিগন্তে ডানা মেলে।।


(রচনাকাল: ২৯ জুন ২০১৭ ইং)



১২টি মন্তব্য


!
১ জুলাই ২০১৭
ফেলে আসা তিথি ফেলে দেয়া স্মৃতি হারায় না কভু দূরে,----- কথা আর ছন্দের মজবুত গাঁথুনি । খুব ভাল লাগা রইল । গানের লিরিক হিসেবে কিন্তু দারুন হবে । অনেক শুভেচ্ছা।
১ জুলাই ২০১৭
ধন্যবাদ! গীতিকবিতা হিসাবেই লেখার চেষ্টা করেছিলাম এটা।
১ জুলাই ২০১৭
খুব সুন্দর!শব্দে,ছন্দে; অনেক অনেক মুগ্ধতা, প্রাণময়ী ; শুভ কামনা এবং ভালোবাসা প্রিয় কবিবর!
১ জুলাই ২০১৭
ধন্যবাদ আপনাকে! :)
৩০ জুন ২০১৭
খুব নিঁখুত বুননের কবিতা।বেশ সুখ পাঠ্য।শুভকামনা রইল অনেক।
১ জুলাই ২০১৭
আবারও ধন্যবাদ আপনাকে।
৩০ জুন ২০১৭
মায়া জড়িত স্মৃতির বাঁধন, সার্থক "প্রত্যাগমন" । প্রিয় কবি বন্ধু, শুভ কামনা রইল।
১ জুলাই ২০১৭
ধন্যবাদ!
৩০ জুন ২০১৭
সুন্দর ছন্দময় কাব্য ভাবনা ! আপনার বাবা এখন কেমন আছেন? আপনার পরিবারের সুসাস্থ কামনা করি!
১ জুলাই ২০১৭
বাবা এখন ভালো আছেন। ধন্যবাদ জানতে চাওয়ায়! :)
৩০ জুন ২০১৭
কেমন আছেন এডমিন ভাই। খুব ভালো ভাবে উপস্থাপিত করা হয়েছে। অভিনন্দন জানাই প্রিয় কবিকে। ভাল থাকবেন।
১ জুলাই ২০১৭
ভালো আছি আমি। ধন্যবাদ!
৩০ জুন ২০১৭
"ফেলে আসা তিথি ফেলে দেয়া স্মৃতি হারায় না কভু দূরে, জেগে উঠে প্রাণে আবারো সে গানে ভুলে যাওয়া সুরে সুরে" মনে হয় অনেকদিন পর তোমার লেখা পেলাম। ছন্দে ছাওয়া সুগঠিত লেখা, সুন্দর হয়েছে বেশ। উদ্ধৃত চরণগুলো বেশি তাৎপর্যময়। অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা রইল কবিকে।
১ জুলাই ২০১৭
ধন্যবাদ বুলবুল দা। আসলেই অনেক দিন পর নতুন কিছু লেখা হলো। এখানে ব্যবহৃত "অবহেলে", "কভু" এবং "অস্ফুটে" শব্দগুলোর প্রয়োগ সেকেলে হিসাবে বিবেচিত এবং বর্জনীয় কিনা সেব্যাপারে আপনার পরামর্শ চাচ্ছি।
১ জুলাই ২০১৭
জান তো কবি - আমি সেকেলে মানুষ। কবিতা-প্রাণের সতেজতা ও নান্দনিক অলংকরণের স্বার্থে এসব শব্দ যদি অবশ্যম্ভাবী হয়ে কবিতায় ঢুকে যায় সেসব তো বটেই এমনকি দু'একটি সাধু-চলিতের মিশ্রণকেও নিন্দনীয় মনে করি না। তবে নিজে আধুনিক হতে না পারলেও এসবের উৎকট ব্যবহার অধুনা কাব্য-রসিকদের কানে না আবার অস্বস্তিকর লাগে সেটা একটু মাথায় রাখি। ধন্যবাদ
২৯ জুন ২০১৭
মনোহর লেখনি।খুব ভালো লাগল।শুভেচ্ছা অনন্ত।
১ জুলাই ২০১৭
ধন্যবাদ :)
২৯ জুন ২০১৭
প্রথম লাইনেই মন ছুয়ে গেল ...।
১ জুলাই ২০১৭
ধন্যবাদ :)
২৯ জুন ২০১৭
বাহ! সুনদর বলেছেন কবি। সুদুরে ভালো থাকুন সর্বদা আর লিখুন প্রাণের কথা। আমন্ত্রণ রইল।
১ জুলাই ২০১৭
আপনিও ভালো থাকুন। ধন্যবাদ।
২৯ জুন ২০১৭
অনন্য! শুভ কামনা রইলো প্রিয় কবির জন্য।
১ জুলাই ২০১৭
ধন্যবাদ আপনাকে। :)
২৯ জুন ২০১৭
দারুণ স্মৃতিগাঁথা, ভূলে যাই বিরহ ব্যাথা।
১ জুলাই ২০১৭
ধন্যবাদ! :)
মন্তব্য করুন