My Poem

The following poem has been published in www.bangla-kobita.com website.

মশক কীর্তন


সন্ধ্যা হলেই অনুরাগে
ঝাঁকে ঝাঁকে যে প্রাণ জাগে,
জেঁকে বসে প্রাণে জাগায় বিরক্তি ও ভয়,
দুঃখে তাকে যতোই ঝাড়ি
থাপড়ে তাদের যতোই মারি
ধ্বংস হলেও বংশ বেড়ে তাদেরই হয় জয়!


কে সেই মহান? নয় অজানা
হুল আছে তার, আছে ডানা,
রক্তচোষা এই প্রাণীটির মশক হল নাম।
তাদের জ্বালায় কর্ম ফেলে
মশারী ও কয়েল জ্বেলে
দিন ফুরালেই নিত্য চলে যুদ্ধ অবিরাম।


যুদ্ধ শেষে ক্লান্ত মনে
তাও বলে যাই সঙ্গোপনে
মশার মাঝেই সুপ্ত আছে সুরেলা এক প্রাণ!
সুযোগ পেলেই গুনগুনিয়ে
সদলবলে যায় শুনিয়ে
ফুর্তি ভরা হৃদয় তাদের, কণ্ঠ ভরা গান।



রচনাকাল: ৮ এপ্রিল ২০১৭ ইং



১৩টি মন্তব্য


২৮ অগাস্ট ২০১৭
চমৎকার কবিতা , আসলে আমরা যা খারাপ দেখি তা সবসময় খারাপ নয়, খারাপের মধ্যেও ভালো কিছুু অাছে । ভাল লাগল ,শুভেচ্ছা সতত ।
১৯ এপ্রিল ২০১৭
মশক কবিতাটি এক অতি বাস্তবতার সাথে ছন্দাবদ্ধ এক নিদারুণ সৌন্দর্যের বহিঃপ্রকাশ।। বর্তমানে ইম্ফলে থাকার সৌভাগ্যে মশকের সহিত ঘনিষ্টতা একটু বেশি অনুভুত হয়, তাই উপভোগ করলাম এর চরম সত্যতা।। আমিও মশার সম্পর্কে একটু লিখেছি আসরে পোষ্ট করেছিলাম।। খুব ভালো লাগলো।।
১৯ জুলাই ২০১৭
ধন্যবাদ অনিমেষ দন্ডপাট!
১৬ এপ্রিল ২০১৭
আপনি মশাকেও মারাত্মক উপভোগ করেন।। আমি অনেকদিন পর আজকে জানলাম আপনিই এডমিন।। আমার কৌতুহল ছিল অনেক দিনের কিন্তু যখন কে এডমিন? এই বিষয়ে আদাপ আলোচনা চলছিলো, সেই সময়েই আমি বাংলা কবিতা থেকে কিছু দিনের জন্যে অবসর।। ধন্যবাদ বন্ধু, তোমার পরিচয় দেওয়ার জন্যে।। এটা গর্বের যে আপনি ভারতে পড়াশুনা করেছেন।।
১৬ এপ্রিল ২০১৭
ধন্যবাদ যোগীরাজ! অনেকদিন পর কবিতার আসরে ফিরে আসায় স্বাগতম।
১০ এপ্রিল ২০১৭
খুব সুন্দর কথা লিখেছেন কবি" মশার মাঝেই সুপ্ত আছে সুরেলা এক প্রাণ।" এ তো এক্কেবারে অনন্য! যন্ত্রনার মধ্যেও আনন্দের অনুভূতি! শুভেচ্ছা কবি প্রিয়।
১১ এপ্রিল ২০১৭
ধন্যবাদ!
৯ এপ্রিল ২০১৭
সুন্দর শুভেচ্ছা রইলো
৯ এপ্রিল ২০১৭
ধন্যবাদ
৮ এপ্রিল ২০১৭
কামড় খেয়েও কবি মশার গানের যে কদর করেছেন তার জন্য কবিকে অভিনন্দন। আশা করি এজন্য মশারা কবিকে ডেঙ্গি, ম্যালেরিয়া থেকে রেহাই দেবে। শুভেচ্ছা।
৯ এপ্রিল ২০১৭
মশারা এখন এটা বুঝলেই হয়!
৮ এপ্রিল ২০১৭
রঙ্গব্যঙ্গের ভাবতরঙ্গে...... মশার গানে সুর মিলাই দিগ্বিজয়ী কবির সঙ্গে...... বিনোদিনী*** এক বার ম্যালেরিয়ায় আক্রান্ত হয়েছি তাই মশার সাথে সমঝোতার গান হাহাহাহাহা......
৯ এপ্রিল ২০১৭
সমঝোতা ছাড়া উপায় কি আর?
৮ এপ্রিল ২০১৭
মশক কীর্তন ।। অসাধারণ অনুভূতির লিখন ।। অনেক অনেক ভালো লাগা সুস্থ থাকুন সর্বদা ।। শুভ কামনা নিরন্তর...
৯ এপ্রিল ২০১৭
ধন্যবাদ!
৮ এপ্রিল ২০১৭
মশার র্কীতনে অভিভূত!! প্রিয় কবির জন্য এক রাশ রক্তিম শুভেচ্ছা ও গভীর ভালোবাসা রেখে গেলাম। ভালো থাকুন সবসময়!!
৯ এপ্রিল ২০১৭
ধন্যবাদ
৮ এপ্রিল ২০১৭
মশক কীর্তন। দারুন। আমেরিকাতেও ধাওয়া করেছে মশা?
৯ এপ্রিল ২০১৭
ধাওয়া করছে না। তাদের গুনগুনানি মিস করার অনুভূতি থেকেই এই লেখার জন্ম।
৮ এপ্রিল ২০১৭
শিরোনামে কবিতার বার্তা লক্ষণীয়। মশক রক্তচোষা , প্রাণঘাতী রোগ ছড়ানো ইত্যাদি ধর্ম পালন করে। এসব কাজ ক'রে তারা ভাবে এই তো আমাদের গর্ব, বংশপরম্পরায় আদিমতম ধর্ম পালন ক'রে চলেছি! কবি সুর ক'রে গেয়েছেন-- 'ফুল ফুটিয়ে যাইগো চ'লে'-- আর এরা গাইছে 'হুল ফুটিয়ে যাইগো চ'লে'। তাই এদের গুণকীর্তন করতেই হয়।--- ধন্যবাদ, প্রিয় পল্লব তোমার সুন্দর ছন্দময় কবিতার জন্য!---আন্দামান, ভারত থেকে রইস দা'।
৯ এপ্রিল ২০১৭
ধন্যবাদ রইস দা! মশা তো মশার ধর্ম পালন করছে ঠিক মতোই। এখন আমরা মানুষেরা সবাই মিলে মানব ধর্ম পালন করতে পারলেই হয়ে যেতো! কেমন আছেন আপনি?
৮ এপ্রিল ২০১৭
সুন্দর কাব্য-কথায় মশক-কীর্তন । কবিকে অনেক শুভেচ্ছা । ৬ নং লাইন- ''ধ্বংস হলেও বংশে বাড়ে- তাদেরই হয় জয় । ''- হলে কেমন হয় কবি ?
৮ এপ্রিল ২০১৭
হ্যাঁ সেভাবেও সুন্দর হয়! ধন্যবাদ।
৮ এপ্রিল ২০১৭
ছায়ার মতো সর্বত্র ছড়িয়ে থাকি আমরা কোথাও নেই কো বাদ, আমরাই ছড়াই ম্যালেরিয়া; সাথে আতঙ্ক ভরা ডেঙ্গুবাদ। খুব সুন্দর বললেন - ধ্বংস হলেও বংশে বেড়ে তাদেরই হয় জয়। ভালো লাগলো লেখনী । *'কয়েক' বোধহয় 'কয়েল' হবে।
৮ এপ্রিল ২০১৭
ধন্যবাদ! হ্যাঁ, কয়েল হতো, ঠিক করে দিয়েছি।
মন্তব্য করুন