My Poem

The following poem has been published in www.bangla-kobita.com website.

দু’চোখের জল


আমার এ দু'চোখের জমে থাকা জল
আজ সব ঝরে শুধু পড়ে অবিরল !!


বুঝবে না বাঁধ ভেঙ্গে কিসের আঘাতে
পৃথিবীর কতটুকু ভেসে গেছে তাতে।
সাগরে যে ডুবে যায় সেই বুঝি জানে
কতোটা গভীরে মিলে সাগরের তল !!


আমিও আমার গড়া সাগরের জলে
অনাদরে ডুবে গেছি গহীন অতলে!
তোমার যে ভালোবাসা দিয়েছিলো আশা
সে আশাও নিরাশায় হয়েছে বিফল !!



১৬টি মন্তব্য


১৪ জুন ২০১৯
বিরহের অনন্য কাব্য!!! শুধু ই ভালো লাগা। প্রিয় কবি কে অনেক শুভেচ্ছা।
১৩ জুন ২০১৯
বড়ই বেদনাতুর বিরহ গাঁথা কবিতা পাঠে একটা বিষণ্ণতার ছোঁয়া দিয়ে গেল যেন । তবে তা শুধু কল্পনার বৈচিত্রেই থাক । বাস্তবে না ঘটুক কারো জীবনে এমন । প্রিয়কবিকে সতত অভিনন্দন । ভালো থাকুন সর্বক্ষণ ।
১৩ জুন ২০১৯
একশোতম কবিতার জন্য প্রিয় কবিকে জানাই আন্তরিক অভিনন্দন। ডুব ডুব ডুব ডুবসাগরে আমার মন। দারুন অনুভুতির কাব্য। ভালো থাকবেন কবি। শুভেচ্ছা নেবেন।
১০ জুন ২০১৯
যে ডুবে সেই জানে, সাগর কত অতল -----গভীর অনুভূতির আত্মপ্রকাশের সঙ্গে কাব্যিকতায় শুধু মুগ্ধতা আর মুগ্ধতা ।
৯ জুন ২০১৯
অনেক অনেক শুভকামনা রইল প্রিয় কবি।
৫ জুন ২০১৯
হতাশায় কবির মন ভারাক্রান্ত । খুব সুন্দর উপস্থাপনা । প্রিয় কবিকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানাই । সুপ্রভাত ।
৫ জুন ২০১৯
"আজ সব ঝরে শুধু পড়ে অবিরল" পড়ে শব্দটির এভাবে ব্যবহার সুরের সহজতা নষ্ট করবে বলেই মনে হচ্ছে। অবশ্য সুরের ভাঙন গায়কী ঢংয়ে অনেক সময় উৎরে যেতে দেখেছি। তবু বাক্য বিন্যাসে শব্দের ব্যবহারে গীতিকারের অখন্ড সুর বা অন্য বাক্যে ব্যবহৃত সুরের গতিময়তা খেয়াল রাখতে হয়। এটি একজন আমি সাধারন পাঠকেরর ব্যক্তগত মত।যা কবি গীতিকার বা অন্য পাঠকের সাথে নাও মিলতে পারে। (শতক একটি সংখ্যা মাত্র।যা অস্থির।) শুভকামনা।
৪ জুন ২০১৯
অন্তহীন নিরাশার এক গভীর যন্ত্রণাময় ছবি যেন বড়ো বেদনা থেকে উঠে এল বিফলতার এমন অনুভব একশোতম কবিতার জন্য প্রিয় কবিকে জানাই আন্তরিক অভিনন্দন ভালো থাকবেন আন্তরিক শুভেচ্ছা সকল সময়।
৪ জুন ২০১৯
মনমুগ্ধকর ।১০০ তম কবিতার জন্য অনেক অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা ।ভালো থাকবেন ।ঈদ মোবারক।
৪ জুন ২০১৯
প্রথমেই ১০০ তম কবিতায় আন্তরিক অভিনন্দন। সম্ভাবনায় সংঘাত, অপ্রাপ্তি আর নিরাশার কঠোর আঘাতে যার বুক ভেঙ্গে যায়, অবিরত ঝরে পড়া অশ্রুই তাঁর দুঃখের ভাষা। অনন্য সুন্দর ও ছন্দময় একটি বিরহ কবিতা। অবিরাম শুভেচ্ছা জানবেন প্রিয় কবি।
৪ জুন ২০১৯
আশা বিফলে গেলে চোখ বেয়ে শ্রাবণ তো নামবেই। তবে কখনও সে ধারা প্রকাশ্য কখনও গোপনে ঝরে। যিনি ডুবেছেন তার অতলে তিনিই বুঝবেন কতোটা গভীরতা ।সুন্দর কবিতা ।শুভেচ্ছা জানবেন।
৪ জুন ২০১৯
চমৎকার। তৃপ্তি পেলাম। শুভেচ্ছা অনন্ত।
৪ জুন ২০১৯
অপূর্ব সুন্দর লিখেছেন প্রিয় কবি, তবে- শোক তাপ সুখ দুখ ব্যথা আর বেদনা ঘুরে ফিরে আসে যায় কেন পাহ যাতনা! ব্যথা বিনে প্রাণ কোথা কহিতে হে পাহ রাত বিনে নাই প্রাত! ব্যথা জ্বালা দাহ। জীবনেতে বাঁকে বাঁকে উঁচু নিচু খানা খাদ ছলনা ও ললনাতে হানে শত অবসাদ। ওই পাড়ে তারই ধরা প্রভাতিক জ্যোতি ধারা মনোরন সুশীতল লুব্ধ ও মনোহরা। সাগরের পানি কভু স্থির কী গো হতে পারে! তরঙ্গ লহরেতে উঁচু নিচু বারে বারে। জোয়ারেতে ফুলে ফুলে গর্জনে তটে পাড়ি ভাটার ওই টানে ফিরে তট হতে যায় সড়ি। ঘন মেঘ ঢেকে দিলে রবি কী গো নিভে যায়! ক্ষণ কাল রাহু কেতু তেজ পুনঃ ফিরে পায়। দুখ সয়ে মহাপ্রাণ গতি তারই নির্বাণে সয়ে যায় হাসি মুখে ব্যথা তারই নিরশনে। আন্তরিক প্রীতি ও অনেক অনেক শুভকামনা রইল প্রিয় কবি।
৪ জুন ২০১৯
বিরহের ছন্দোবদ্ধ কবিতা-অপূর্ব কথাকলি। ভালো থাকবেন।ঈদের আগাম শুভেচ্ছা জানবেন,কবিবন্ধু।
৪ জুন ২০১৯
১০০ তম কবিতায় ১০০ গোলাপের শুভেচ্ছা। ভালো থাকুন কবি।
৪ জুন ২০১৯
সুন্দর বিরহের কবিতা । অনবদ্য শব্দাচরণে কবিতা অনুপম । থাকলো রক্তিম অভিনন্দন...
মন্তব্য করুন