My Poem

The following poem has been published in www.bangla-kobita.com website.

বিবর্তন


কোথাকার কবেকার একরাশ নীলে বুনে স্বপ্নের জাল
দেখেছিলে মায়াচাঁদ লাজুক হাসিতে বেঁধে রাখে মহাকাল।
বছরের হাত ধরে বছর গড়ায়, আসে দিন, রাত বয়ে যায়,
ছোট কুঁড়ি ফুটে, ঝরে পড়ে, সৌরভে শূন্যে মিলায়।
ছোট ছোট হাত মুঠি বাঁধে, জঠর কাঁপিয়ে নেয় জীয়ন শপথ,
কিশলয় বেড়ে উঠে, আকাশের নীল ঢেকে ছায় মেঠো পথ।
আসে ঝড়, ঝড় শেষে নতুনের উদ্যমে জাগে প্রত্যয়,
ধ্বংসের ধুলো থেকে সৃষ্টির যজ্ঞে মাতে নতুন সময়।
শুনেছিলে কান পেতে দূর থেকে ভেসে আসা বিজনের সুর,
বোধের আড়ালে বোধ খেলে যায়, কাঁপে সুরে বিলাপ বিধুর।
প্রতিবার বারবার প্লাবন ভাসায় বাঁধ রক্তিম ঊষর ধরায়,
পললে পরত জমে, ঘাস ছায় সুশ্যামল উর্বরতায়।
ঢেউ খেলে যায় জলে, ঢেউয়ে খেলে অবারিত শস্যের মাঠ,
আকাশে ভাসায় ডানা, পাখি খুঁজে নেয় তার জীবনের পাঠ।
জীবন! জীবন্ত রূপে অনাদিকাল ছুটে চলে অবিরাম,
ছুটেছিলে সেই পথে, অজানার পথে, খুঁজে পেতে পরিণাম।
দেখেছো সাগর ফুঁসে, নিঃশ্বাসে জীবনের দেয় আশ্বাস,
সময় এগিয়ে চলে, উদ্ভিন্ন যৌবনে জরা বাধে বাস।
নতুনের পথ চেয়ে ঝরে যায় জীর্ণতা, পিছে রেখে যায় অবদান,
নবজাতকের মাঝে জীবনের মানে খুঁজে পায় প্রস্থান।



৫টি মন্তব্য


৫ নভেম্বর ২০১২
ম্ম নিচের এই কবিতাটি গুরুদেবের ।
৫ নভেম্বর ২০১২
আমারে তুমি অশেষ করেছ- এমনি মহিমা তব, ফুরায়ে ফেলে আবার গড়েছ জীবন নব নব ।
২৬ সেপ্টেম্বর ২০১২
ধন্যবাদ শতদ্রু ও কবীর হুমায়ূন। কবীর, আমার ক্ষুদ্র কাব্যজ্ঞান দিয়ে কবিতাটির ছন্দবৃত্ত সম্পর্কে কিছু বলতে পারছি না, দুঃখিত। মনের মাঝে যে তালে শব্দগুলো আসছিলো, সেই তালেই লেখার চেষ্টা করেছিলাম। :)
Satadru
Satadru
২৬ সেপ্টেম্বর ২০১২
Prochondo expansive. Epic proportion'er lekha. Canvas ta bhishon boro. Bhalo laglo!
২৫ সেপ্টেম্বর ২০১২
কবিতা ভালো হয়েছে। তবে আমার জানতে ইচ্ছে করছে, ছন্দের ধারার কোন বৃত্তে এ কবিতাখানি লেখা হয়েছে? ভালো থাকুন।
মন্তব্য করুন